Awesome Image

যৌন জীবনে পূর্ণাঙ্গ তৃপ্তি পেতে কিছু দরকারি টিপসএবং পরামর্শ

August 23, 2019

সকলের জানা থাকলে জীবনের জন্য অপরিহার্য।http://kolikataherbaldoctor.com/

 

যৌন জীবনে পুরুষের তুলনায় মহিলাদের অসুখী হওয়ার হার অনেক বেশি। এমনকি নিজের ভালোবাসার পুরুষটির সঙ্গেও যৌন জীবন নিয়ে খুশী নন অনেক মহিলাই। মুখে প্রকাশ না করলেও মনের মধ্যে ক্ষোভ নিয়ে জীবন যাপন করেন, মুখ ফুটে অনেকে বলতে পারেন না যৌন জীবনে নিজের অসুবিধার কথা। কিন্তু এরকম কেন? কেন অনেক নারী যৌন জীবনে অসুখী ও অতৃপ্ত?
ভুল ধারণা এবং অজ্ঞতা যৌন জীবনে অসুখী রয়ে যাওয়ার মূল কারণ। সঙ্গে পর্যাপ্ত যৌন শিক্ষার অভাব। যৌনতা হল নারী এবং পুরুষ উভয়ের জন্য একটি আনন্দের ব্যাপার। এই বিষয়টি সম্পর্কে আজও অজ্ঞ প্রচুর নারী। তাই যৌন জীবনে পূর্ণাঙ্গ তৃপ্তি পেতে জেনে নিন কিছু টিপস।
১. নিজেকে বুঝতে না পারা
আসলে কী চাইছেন? তার শরীর কোন ডাকে কীভাবে সাড়া দিচ্ছে। কোন অঙ্গগুলো যৌনতার ক্ষেত্রে স্পর্শকাতর কিংবা নিজের শরীরের চাহিদাগুলো কী কী ইত্যাদি বিষয়ে অজ্ঞতা এবং বুঝতে না পারাও যৌন জীবনে অসুখী হবার একটি বড় কারণ।
২. কি চাই সেটা বলতে না পারা

 


নিজের চাহিদাও জানেন, কিন্তু মুখ ফুটে বলতে পারছেন না নিজের ভালো লাগা না লাগার কথা। নারীদের যৌন জীবনে অতৃপ্ত থাকার অন্তরালে এটা একটি বিশেষ কারণ। এমনকি তিনি যে যৌন জীবনে সুখী নন এটাও পুরুষ সঙ্গীকে মুখ ফুটে বলতে পারেন না অনেক নারী। http://kolikataherbaldoctor.com/
৩. লজ্জা এবং সংকোচ
অনেক নারী মনে করেন যে মেয়েদের যৌনতার কথা বলতে নেই, কিংবা মেয়েদের যৌনতার বিষয়টি নিয়ে কথা বলা কিংবা যৌন চাহিদা প্রদর্শন করার বিষয়টি খুবই লজ্জার। তাই মনের ইচ্ছা মনে চেপে রাখেন তারা।
৪. পুরুষ সঙ্গীর স্বার্থপরতা
বেশির ভাগ পুরুষ নিজের সঙ্গিনীর যৌন চাহিদা পূরণের ব্যাপারে মনযোগী নন। বরং নিজের চাহিদা মিটে গেলে তারা স্বার্থপরের মত আচরণ করতে শুরু করেন. এটা নারীদের অতৃপ্ত থাকার একটি বড় কারণ।
৫. শারীরিক এবং মানসিক সমস্যা নিয়ে সংকোচ
যৌনতায় আগ্রহ নেই কিংবা যৌনতা ঘিরে কোনো শারীরিক সমস্যা বোধ করছেন। এমন অবস্থায় ডাক্তারের কাছে যান না অধিকাংশ নারী। ফলে সামান্য একটু চিকিৎসার অভাবে তাদের যৌন জীবন রয়ে যায় বিভীষিকাময়।
৬. যৌনতা ঘিরে ভয়
অনেক নারীর মাঝে যৌনতা বিষয়ে নানান রকমের ভীতি কাজ করে. ফলে এই বিষয়টি সম্পর্কে তারা কখনও সহজ মনোভাব পোষণ করতে পারেন না। চিরকাল বিষয়টি নিয়ে আড়ষ্টতা রয়ে যায়।
৮ কারণে সহবাসে বাড়বে সৌন্দর্য।ডাঃ মোঃ মাহাবুবুর রহমান। http://kolikataherbaldoctor.com/
কোনও আকাশকুসুম কল্পনা নয়, সত্যি সত্যি এবং সত্যি৷ শুধু মানসিক নয় বা শারীরিক তৃপ্তি নয়, সৌন্দর্যের জেল্লা বাড়াতেও প্রয়োজন সহবাস। এমনটাই মত বিশেষজ্ঞদের৷ এর পিছনে তাঁরা খাড়া করিয়েছেন চিকিৎসাবিজ্ঞানের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে কিছু যুক্তিও৷ কীভাবে, আসুন তা জেনে নিই
১) আমাদের চুল এবং ত্বক ভালো রাখার জন্য ইস্ট্রোজেন হরমোন দায়ী৷ আর যত বেশি সহবাস করা যায়, ততই মহিলাদের শরীরে বেশি করে উৎপন্ন হয় ইস্ট্রোজেন হরমোন৷ ফলে চেহারাতেও থাকে ফাটাফাটি জেল্লা৷ এছাড়াও সহবাসের ফলে উৎপন্ন কোলাজেন হরমোনও ত্বককে টানটান রাখতে সাহায্য করে
২) গবেষণায় দেখা গিয়েছে, যারা সপ্তাহে দু-তিনদিন নিয়মমাফিক যৌনসম্পর্ক করেন, তাদের চেহারায় তারুণ্য বজায় থাকে, অন্যদের তুলনায় অনেক বেশি৷ কারণ তারা মানসিকভাবে বেশি সুখী হন৷
৩) যৌনসুখের চরম সীমায় পৌঁছে আমাদের শরীর থেকে নিঃসৃত হয় সেরাটোনিন, যা আমাদের মুড নিয়ন্ত্রণ করে৷ আমাদের হাসিখুশি, প্রাণোচ্ছ্বল রাখতেও এই নিউরোট্রান্সমিটারটি দায়ী৷ ফলে আমাদের মনে অবসাদ গ্রাস করতে পারে না৷ চেহারাতেও থাকে এক ধরনের ফ্রেশ, ফুরফুরে লুক৷
৪) কোনও কোনও বিশেষজ্ঞের মতে, বক্ষদেশের সৌন্দর্য বাড়াতেও সহবাস অপরিহার্য৷
৫) সহবাসে শরীর থেকে প্রচুর পরিমাণে অক্সিটোসিন নির্গত হয়, আর অক্সিটোসিন আমাদের শরীরের কোর্টিসেল নামক প্রধান স্ট্রেস হরমোনের মাত্রা কমিয়ে ফেলতে সাহায্য করে৷তাই আক্ষরিকই যাঁরা নিয়মিত সহবাসের মধ্যে থাকেন, তাদের জীবনেও থাকে অপার শান্তি৷ http://kolikataherbaldoctor.com/
৬) সফল সহবাসের সময় আমাদের শরীর থেকে এমন কিছু কেমিকেল বেরায় যা আমাদের মনটাকে ভালো রাখতে খুব ফলপ্রসূ৷যেমন ডোপেমিন, আপনাকে সবসময় উজ্জীবীত রাখে, সব কাজে জোগায় বাড়তি উৎসাহ৷পুরষদের শরীর থেকে বেরোনো টেস্টাস্টেরন কাজে নিয়ে আসে অতিরিক্ত উদ্দীপনা৷এন্ডোরফিন আপনার স্ট্রেস কমিয়ে আপনাকে রাখে রিল্যাক্সড৷মানে এক একবারের সহবাসে আপনি উপকৃত হবেন এতভাবে৷ ভাবা যায়!
৭) সহবাসের ফলে হার্টের কার্যকারিতা ও শরীরের রক্ত সঞ্চালন ভালো থাকে৷ একবারের সেক্সে প্রায় ৫০০ ক্যালোরির কাছাকাছি এনার্জি করচ হয়৷ ফলে খুব কম সময়েই আপনার শরীর থেকে অল্প অল্প করে ঝরতে থাকে মেদ৷ সুতরাং বলাই যায় নিয়মিত যোগা বা জিম সেন্টারে গিয়ে টাকা খরচ করার তুলনায় বাড়িতেই বজায় রাখুন আপনার স্বাভাবিক যৌন জীবন৷

 


৮) স্বাভাবিক এবং নিয়মিত যৌনজীবনে আমাদের মধ্যে বাড়ে আত্মবিশ্বাসও, মন থাকবে শান্ত ও ফোকাসড৷ বাড়বে আপনার সৃজনশীলতাও৷ ফলে আক্ষরিকই বিকাশ হবে আপনার অভ্যন্তরীণ সৌন্দর্যের৷ আপনিও হয়ে উঠবে একেবারে অন্য ব্যক্তিত্ব৷ 
চাহিদা বাড়াতে দুর্দান্ত কিছু টিপস।
ডাঃ মোঃ মাহাবুবুর রহমান। http://kolikataherbaldoctor.com/
শারীরিক সম্পর্কের ব্যাপারটি কখনোই পুরুষের এক তরফা নয়। বরং একজন নারীকেও এর সঙ্গে সমানভাবে মেতে উঠতে হয়। একজন নারী ও পুরুষের সমান সমান অংশগ্রহণে যৌনতা হয়ে ওঠে উপভোগ্য ও দারুণ।
চলুন যৌনতাকে উপভোগ্য করতে জেনে নিই আরও কিছু গোপন টিপস
যৌনতায় আমেজ আনতে এক সঙ্গে দেখুন কোন রোমান্টিক সিনেমা, এতে নতুন করে উৎসাহ আসতে পারে যৌনতায়।
যৌনতা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে দুই কাপ করে কফি খেলে নতুন করে শরীরে শক্তি ফিরে আসে।
যৌনতার ক্ষেত্রে নারী-পুরুষ দুজনই খোলামেলা হন, দম্পতিরা এক সঙ্গে থাকার সময় নগ্ন অবস্থায় থাকায় যৌনতায় বেশী প্রভাব টানে।
সামনের দিকে ঝুঁকে যেসব ব্যায়াম করতে হয়, এ ধরনের অনুশীলন অর্গাজম দেরি করে এবং বেশি সময় ধরে যৌনতার সুযোগ করে দেয়।
অনলাইন মাধ্যম বাদ দিয়ে সত্যিকার জীবনে পড়ে থাকুন।
ধূমপানের কারণে পুরুষের যৌন মিলনে সমস্যা সৃষ্টি হয়। এছাড়া এটি পরিপূর্ণ তৃপ্তির ক্ষেত্রেও সমস্যা সৃষ্টি করে। তাই ধূমপান বাদ দিলে যৌনতা বেশি উপভোগ্য হবে।
আপেলের সুগন্ধ নারী ও পুরুষের যৌন উত্তেজনা বাড়িয়ে দেয়। তাই পাশে রাখতে পারেন।
নারী লাল পোশাক পরলে পুরুষ বেশী আগ্রহী হয় যৌনতায়। যা উত্তেজনায় বাড়ায়। http://kolikataherbaldoctor.com/
বেডরুম সাজান বেগুনি রঙে। কারণ এই রং অন্য সব রঙের তুলনায় যৌনতায় বেশী উৎসাহিত করে।
বেশ কিছু খাবার যৌনতায় উৎসাহিত করে। এসব খাবারের মধ্যে রয়েছে কুমড়ার বীজ, আমলকি, রসুন, চকলেট, কলা ও ঝিনুক।
ভালো যৌনজীবনের জন্য সন্তান নিতে দেরি করা উচিত। পাঁচ হাজার দম্পতির মাঝে এক গবেষণায় দেখা গেছে, যে দম্পতিদের সন্তান নেই তারা যৌনজীবনে অন্যদের তুলনায় বেশী তৃপ্ত।
বেশি চুম্বনে যৌনতার উৎসাহ অনেকগুণ বাড়িয়ে যায়। এছাড়া এটি অন্তরঙ্গতা বাড়তেও ভূমিকা রাখে। পুরুষের তুলনায় নারীর জন্য এটি বেশি প্রয়োজনীয়।
ডার্ক চকলেট যৌনতার আগ্রহ অনেকাংশে বাড়িয়ে দেয়। তবে শুধু আগ্রহই নয় এটি যৌনতার তৃপ্তি বাড়িয়ে দেয় এবং অর্গাজমে সহায়তা করে।
শারীরিক চাহিদা বাড়াতে জানুন কিছু টিপস পরামর্শ( ডাঃ মাহাবুবুর রহমান,) http://kolikataherbaldoctor.com/
শারীরিক সম্পর্কের ব্যাপারটি কখনোই পুরুষের এক তরফা নয়। বরং একজন নারীকেও এর সঙ্গে সমানভাবে মেতে উঠতে হয়। একজন নারী ও পুরুষের সমান সমান অংশগ্রহণে যৌনতা হয়ে ওঠে উপভোগ্য ও দারুণ।
চলুন যৌনতাকে উপভোগ্য করতে জেনে নিই আরও কিছু গোপন টিপস।জানাচ্ছেন ডাঃ মোঃ মাহাবুবুর রহমান।
যৌনতায় আমেজ আনতে এক সঙ্গে দেখুন কোন রোমান্টিক সিনেমা, এতে নতুন করে উৎসাহ আসতে পারে যৌনতায়।যৌনতা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে দুই কাপ করে কফি খেলে নতুন করে শরীরে শক্তি ফিরে আসে।যৌনতার ক্ষেত্রে নারী-পুরুষ দুজনই খোলামেলা হন, দম্পতিরা এক সঙ্গে থাকার সময় নগ্ন অবস্থায় থাকায় যৌনতায় বেশী প্রভাব টানে।সামনের দিকে ঝুঁকে যেসব ব্যায়াম করতে হয়, এ ধরনের অনুশীলন অর্গাজম দেরি করে এবং বেশি সময় ধরে যৌনতার সুযোগ করে দেয়।অনলাইন মাধ্যম বাদ দিয়ে সত্যিকার জীবনে পড়ে থাকুন।ধূমপানের কারণে পুরুষের যৌন মিলনে সমস্যা সৃষ্টি হয়। এছাড়া এটি পরিপূর্ণ তৃপ্তির ক্ষেত্রেও সমস্যা সৃষ্টি করে। তাই ধূমপান বাদ দিলে যৌনতা বেশি উপভোগ্য হবে।আপেলের সুগন্ধ নারী ও পুরুষের যৌন উত্তেজনা বাড়িয়ে দেয়। তাই পাশে রাখতে পারেন।নারী লাল পোশাক পরলে পুরুষ বেশী আগ্রহী হয় যৌনতায়। যা উত্তেজনায় বাড়ায়।বেডরুম সাজান বেগুনি রঙে। কারণ এই রং অন্য সব রঙের তুলনায় যৌনতায় বেশী উৎসাহিত করে।বেশ কিছু খাবার যৌনতায় উৎসাহিত করে এসব খাবারের মধ্যে রয়েছে কুমড়ার বীজ, আমলকি, রসুন, চকলেট, কলা ও ঝিনুক।ভালো যৌনজীবনের জন্য সন্তান নিতে দেরি করা উচিত। পাঁচ হাজার দম্পতির মাঝে এক গবেষণায় দেখা গেছে, যে দম্পতিদের সন্তান নেই তারা যৌনজীবনে অন্যদের তুলনায় বেশী তৃপ্ত।বেশি চুম্বনে যৌনতার উৎসাহ অনেকগুণ বাড়িয়ে যায়। এছাড়া এটি অন্তরঙ্গতা বাড়তেও ভূমিকা রাখে। পুরুষের তুলনায় নারীর জন্য এটি বেশি প্রয়োজনীয়।ডার্ক চকলেট যৌনতার আগ্রহ অনেকাংশে বাড়িয়ে দেয়। তবে শুধু আগ্রহই নয় এটি যৌনতার তৃপ্তি বাড়িয়ে দেয় এবং অর্গাজমে সহায়তা করে। http://kolikataherbaldoctor.com/
আপনি কি দাম্পত্য জীবন নিয়ে চিন্তিত? অথবা বিবাহিত জীবন নিয়ে অশান্তিতে ভোগছেন? আর দূর্চিন্তা নয় আপনার সব ব্যর্থতা দুর করতে আমাদের বিশেষজ্ঞ ডাক্তার রয়েছে আপনার সাথে,যে কোন প্রয়োজনে চিকিৎসা সেবা পরামর্শ নিতে যোগাযোগ করুন। এবং ফোন করুন। যেকোনো সমস্যাগুলো খুলে বলবেন।

কলিকাতা হারবাল দীর্ঘ 17 বছর বৎসর যাবত থেকে, বাংলাদেশ, নেপাল, ভারত, আরব আমিরাত, সৌদি আরব, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, কাতার, ওমান, মালদ্বীপ মালয়েশিয়া মধ্যপ্রাচ্যসহ কুয়েতসহ বিভিন্ন রাষ্ট্রে সুনামের সহিত চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছে। ইউনানী এবং আয়ুর্বেদিক হারবাল ঔষধ হচ্ছে সম্পুর্ণ প্রাকৃতিক গাছ গাছড়ার শিকড় বাকড় পাতা লতা ফলমূলের উপাদান থেকে তৈরি। যে কোন জটিল ও কঠিন রোগের জন্য আমাদের আছে অভিজ্ঞ ইউনানী ও আয়ুর্বেদিক হারবাল চিকিৎসক,যৌন রোগে বিশ্বযোগ্য ও অভিজ্ঞ স্পেশালিষ্ট, আয়ুর্বেদিক হারবাল ইউনানি ভেষজ ফিজিসিয়ান ও স্বাস্থ্যরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক প্যানেল।শতভাগ সফলতার চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করুন। যেকোন সমস্যার জন্য সকল রোগ বিষয়ে।

বিজ্ঞানসম্মত উপায়ে বিদেশী মেশিনারাইজড পদ্ধতিতে দেশি ও বিদেশী গাছ গাছড়ার সংমিশ্রণে তৈরী। কলিকাতা হারবাল এর ওষুধ। বিঃদ্রঃ কলিকাতা হারবাল মেডিসিন ওষুধ আমাদের পণ্য অন্য কোন কোম্পানিতে পাওয়া যায় না (নকল হতে সাবধান) http://kolikataherbaldoctor.com/
সৃষ্টির শ্রেষ্ঠ জীব মানুষ,আর মানুষের প্রকৃত বন্ধু গাছ,এই নিয়েই আমাদের সূচনা, গাছ লাগান পরিবেশ বাঁচান গাছ শুধু পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে না জীবনরক্ষাকারী গাছ।বেশি করে ঔষুধী বৃক্ষরোপণ করুন সুস্থ জীবন নিশ্চিত করুন। ধন্যবাদ সবাইকে।আমাদের বাংলাদেশ-ভারত কোরিয়া জাপানের তৈরি করা আয়ুর্বেদিক হারবাল মেডিসিন আয়ুর্বেদিক গাছ গাছরা, যা দ্বারা তৈরি হয় আয়ুর্বেদিক হারবাল ঔষধ, সেবন করুন সুস্থ জীবন নিশ্চিত করুন আসুন আমরা সবাই আয়ুর্বেদিক হারবাল ইউনানী এবং ভেষজ চিকিৎসা নিয়ে স্থায়ী ভাবে সুস্থ থাকি, ইনশাল্লাহ।
সরাসরি যোগাযোগ-এর ঠিকানা
মোহাম্মদপুর বি.আর.টি.সি বাসস্ট্যান্ড আল্লাহ্ করিম মসজিদ মার্কেট ২য় তলা মোহাম্মদপুর ঢাকা-১২০৭
হট লাইন-01763663333
ডাঃ মোঃ মাহাবুবুর রহমান
ইমু নাম্বার 01971198888
http://kolikataherbaldoctor.com/